বৃহস্পতিবার ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

গাইবান্ধায় স্কুটি চালিয়ে কৃষকদের সেবা দিচ্ছেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা শর্মিলা শারমিন

মোঃ পাপুল সরকার,গাইবান্ধা প্রতিনিধি   |   রবিবার, ১৪ জানুয়ারি ২০২৪   |   প্রিন্ট   |   163 বার পঠিত

গাইবান্ধায় স্কুটি চালিয়ে কৃষকদের সেবা দিচ্ছেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা শর্মিলা শারমিন

নারীরাও এখন স্কুটি বা বাইক চালিয়ে পাড়ি দিচ্ছেন দুর্গম পথ। দেশে এখন পুরুষদের পাশাপাশি অনেক নারীরা স্কুটি বা বাইক নিয়ে ছুঁটছেন। সমাজের নেতিবাচক কথা বা প্রতিকূল পরিবেশকে হার মানিয়ে নারীরা এগিয়ে চলছে। এসব নারী বাইকারের মধ্যে অধিকাংশই কর্মজীবী। অর্থ এবং সময় সাশ্রয়ীর পাশাপাশি ভোগান্তিহীন যাতায়াতে দিন-দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে নারীদের স্কুটি বা বাইক চালানো। এনজিও নারীকর্মী বাইকারদের দেখা যায় হরহামেশাই। সে তুলনায় সরকারি চাকুরিজীবী নারী বাইকার অপ্রতুল।

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা শর্মিলা শারমিন একজন নারী বাইকার। কৃষকদের পরামর্শ দিতে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে স্কুটি চালাচ্ছেন তিনি। স্কুটি থাকায় নিজ ব্লকে গিয়ে কৃষি সেবার কাজটা কৃষকদের মাঝে দ্রুত পৌঁছে দিচ্ছেন।

স্কুটি চালানোর বিষয়ে শর্মিলা শারমিন বলেন, পলাশবাড়ী পৌরসভার ৮নং ব্লকে উপসহকারি কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছি। এই ব্লকে ৪টি ওয়ার্ডে কৃষকের সংখ্যা প্রায় ২ হাজারের বেশি। কৃষকদের সেবা দিতে পায়ে হেঁটে কিংবা রিকশা-ভ্যানে যাতায়াত করতে খুবই কষ্ট হতো। অনেক দিন রাস্তায় বের হয়ে রিকশা-ভ্যানের জন্য অপেক্ষা করতে হতো। এক গ্রাম থেকে অপর গ্রামে যেতে সময় এবং বাড়তি ভাড়া লাগতো। আমার ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও কৃষকদের অধিক সেবা দিতে পারছিলাম না। কিভাবে কৃষকদের সেবা বাড়ানো যায় এ সংক্রান্ত বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার মোছা. ফাতেমা কাওসার মিশু স্যারের পরামর্শে স্কুটি কিনেছি। এখন কৃষকদের অধিক সেবা দিতে পারছি। চাকুরির প্রয়োজনে মূলতঃ স্কুটিটা কেনা।

স্কুটি চালানো কোন সমস্যা হয় কিনা এক প্রশ্নে তিনি বলেন, প্রথম দিকে একটু ভয়-সংশয় ছিল পাছে লোকে কিছু বলে তা নিয়ে। স্কুটি চালাতে গিয়ে অনেক প্রতিকূলতার সম্মুখীন হতে হয়। রাস্তায় অনেকে বাজে মন্তব্য ছুড়ে দেয়। এখনও চলতে পথে কটুকথা শুনতে হয়। এসব কথা আমলে না নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি।

Facebook Comments Box

Posted ৬:২২ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১৪ জানুয়ারি ২০২৪

bangladoinik.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

https://prothomalo.com
https://prothomalo.com

এ বিভাগের আরও খবর

https://prothomalo.com
https://prothomalo.com
চেয়ারম্যান
মোঃ সাইফুল ইসলাম
সম্পাদক
এইচ এম হাবীব উল্লাহ
সম্পাদক ও প্রকাশক
ফখরুল ইসলাম
সহসম্পাদক
মো: মাজহারুল ইসলাম
Address

32/ North Mugda, Dhaka -1214, Bangladesh

01941702035, 01917142520

bangladoinik@gmail.com

জে এস ফুজিয়ামা ইন্টারন্যাশনালের একটি প্রতিষ্ঠান। ভ্রাতৃপ্রতিম নিউজ - newss24.com