শুক্রবার ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

ভাষার মাস ও মাতৃভাষা বাংলা নিয়ে বেরোবি শিক্ষার্থীদের ভাবনা

আরবাজ (রুমান),বেরোবি প্রতিনিধিঃ   |   মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   |   প্রিন্ট   |   209 বার পঠিত

ভাষার মাস ও মাতৃভাষা বাংলা নিয়ে বেরোবি শিক্ষার্থীদের ভাবনা

একুশে ফেব্রুয়ারি বাঙালী জাতির জীবনে একটি গৌরবময় দিন। যার স্মৃতিচিহ্ন আজও ইতিহাসে সমুজ্জ্বল। আজকের এই দিনে বাংলার দামাল ছেলেরা রাজপথে নেমেছিলো নিজেদের মাতৃভাষা বাংলার জন্য। নিজেদের বুকের তাজা রক্ত দিয়ে তারা এই ভাষাকে রক্ষা করেছিলো।

সেই প্রথম কোন জাতি তাদের মাতৃভাষার জন্য রাজপথে রক্ত ঝরিয়েছিলো। সারাবিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়েছিলো এই খবর। আমাদের এই দেশকে স্বাধীন করা আর নিজেদের অধিকার আদায়ের সূচনাই হয়েছিলো ১৯৫২ সালের এই ভাষা আন্দোলনের মধ্যে দিয়ে। নিজের ভাষায় কথা বলার মতো সুখ যেন আর কিছুতে নেই! নিজের ভাষায় মনের ভাব যত সহজে আর সাবলীলভাবে প্রকাশ করা যায়। তা অন্য কোন ভাষায় প্রকাশ করা যায় না।

আমাদের জীবনবোধ, শিক্ষা ও সংস্কৃতির সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে আমাদের ভাষা। দুঃখের বিষয় হচ্ছে, বর্তমান তরুণ প্রজম্মের কাছে বিদেশি ভাষা ও সংস্কৃতির চর্চা বাড়ছে। কথায় কথায় তারা বিদেশি শব্দের বুলি আওড়াচ্ছে। অনেকেই তো টানা এক বা দুই মিনিট বিদেশি শব্দের মিশ্রণ ছাড়া শুদ্ধ বাংলায় কথা ই বলতে পারে না।

যা বাংলা ভাষার জন্য অত্যন্ত অপমান জনক। নিজের ভাষায় কথা বলার যে আনন্দ বা সুখ তা প্রবাসী নাহলে যেন অনুধাবন করার উপায় নেই। এই মূহুর্তে মাতৃভাষা রক্ষার্থে সবাইকে মাতৃভাষা চর্চায় মনোযোগ দিতে হবে। তা নাহলে সময়ের পরিক্রমায় মাতৃভাষা বাংলা তার নিজস্ব স্বকীয়তা হারাবে। ভাষার মাসে একুশের এই প্রহরে বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষাই হোক তরুণ প্রজম্মের শপথ।

ভাষার মাস ও মাতৃভাষা নিয়ে নিজেদের ভাবনা ও চেতনার কথা জানিয়েছেন রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) কয়েকজন শিক্ষার্থী।

তাদের কথাগুলো তুলে ধরা হলো:

ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী মনিরুল ইসলাম মুকুল বলেন, ভাষা বেঁচে থাকে চর্চার মধ্য দিয়ে। চর্চার অভাবে পৃথিবীর অনেক ভাষা হারিয়ে গেছে! বাংলা বাঙালির আবেগ, ইতিহাস আর ঐতিহ্যের ভাষা। অথচ বর্তমান তরুণ প্রজন্মের কাছে এই ভাষা অনেকটা সেকেলের পথে। বর্তমান তরুণ প্রজন্ম বিদেশি ভাষা ও অপসংস্কৃতি গ্রহণ করতে গিয়ে, বাংলা ভাষাকে অবহেলা করেই চলছে! ভাষার বিকৃতি তরুণ প্রজন্মের কাছে আনন্দের একটা খোরাক হয়ে দাড়িয়েছে। বাংলা ভাষার চর্চা ও যত্নের মাধ্যমে তরুণ প্রজন্ম বাংলা ভাষাকে অনেকদিন বাঁচিয়ে রাখতে পারে।

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী আদুরী খাতুন বলেন, আমার প্রথম পরিচয় আমি একজন বাঙালী । আমার ভাষা বাংলা। ভাষা হলো মানুষের ভাব প্রকাশের মাধ্যম ।পৃথিবীতে অনেক ভাষা বিদ্যমান থাকলেও সেইসব ভাষায় মনের ভাব সম্পূর্ণভাবে প্রকাশ করা যায় না ।এই বাংলাকে মাতৃভাষার রূপ দিতে গিয়ে ১৯৫২ সালে ফেব্রুয়ারি মাসে প্রাণ দেন বাংলার দামাল ছেলেরা। রফিক, শফিক, জব্বার সহ নাম না জানা অনেকে ।আমি গর্বিত আমার ভাষা বাংলা ।১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন আমাদের অন্যান্য ভাষার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে শেখায় ।

মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী আল-আমিন বলেন, ভাষার মাস বাঙালির গৌরবের মাস,রক্ত বিজড়িত এ মাসে বাংলার দামাল ছেলেদের বুক ঝাঁঝরা করে দিয়েছিলো পাকিস্তানি দস্যুদল। তাদের বুকের তাজা রক্তের বিনিময়ে আমরা পেয়েছি আমাদের মাতৃভাষা।
ছাত্রজনতার আত্নত্যাগের বিনিময়ে যে ভাষা অর্জিত হয়েছে তা শুধু মাত্র বাঙালির গৌরবময় ইতিহাস নয় এটি বিশ্ব মহলের গৌরবময় ইতিহাস।

ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষার্থী আফসানা ইসলাম আর্নিকা বলেন, আজকের এই দিনে মহান ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা রইলো। ২১ শে ফেব্রুয়ারী বাঙালি জনগণের ভাষা আন্দোলনের মর্মন্তুদ ও গৌরবোজ্জ্বল স্মৃতিবিজড়িত একটি দিন। বাংলাকে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে ঢাকায় আন্দোলনরত ছাত্রদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণে অনেক তরুণ ছাত্র শহীদ হন। তাদের জন্যই আমরা মন খুলে বাংলা ভাষা বলছি ও লিখছি।বিশ্বের ইতিহাসে মাতৃভাষার জন্য বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলাম আমরা এই বাঙালীরাই।আজ সারা বিশ্ব এই দিনটি স্মরণ করে আর সকলে একই সুরে গেয়ে উঠে-
“আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি,আমি কি ভুলতে পারি!”

Facebook Comments Box

Posted ৭:৪০ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

bangladoinik.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

https://prothomalo.com
https://prothomalo.com

এ বিভাগের আরও খবর

https://prothomalo.com
https://prothomalo.com
চেয়ারম্যান
মোঃ সাইফুল ইসলাম
সম্পাদক
এইচ এম হাবীব উল্লাহ
সম্পাদক ও প্রকাশক
ফখরুল ইসলাম
সহসম্পাদক
মো: মাজহারুল ইসলাম
Address

32/ North Mugda, Dhaka -1214, Bangladesh

01941702035, 01917142520

bangladoinik@gmail.com

জে এস ফুজিয়ামা ইন্টারন্যাশনালের একটি প্রতিষ্ঠান। ভ্রাতৃপ্রতিম নিউজ - newss24.com