রবিবার ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

নোবিপ্রবিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের ক্রম নিয়ে বিশৃঙ্খলা

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি:   |   বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   |   প্রিন্ট   |   242 বার পঠিত

নোবিপ্রবিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের ক্রম নিয়ে বিশৃঙ্খলা

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে পুষ্পস্তবক অর্পণের ক্রম নিয়ে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) বিশৃঙ্খলার অভিযোগ উঠেছে।বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারী) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এই ঘটনা ঘটে।

দিবসটি উপলক্ষে শোক পদযাত্রা ও শ্রদ্ধা নিবেদনের কর্মসূচি গ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।শোক পদযাত্রাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে শহীদ মিনারে এসে শেষ হয়। পরবর্তীতে শহীদ মিনারে ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে শহীদ মিনার চত্বরে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়।

সরেজমিনে দেখা যায়, ফুল দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনোরকম পূর্বনির্ধারিত নিয়মনীতি অনুসরণ না করেই শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য আহ্বান করা হয়। এতে করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের শ্রদ্ধা নিবেদনের পর ফুল দেওয়া নিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও শিক্ষক সমিতির পর নোবিপ্রবি ছাত্রলীগের নাম ঘোষণা করা হয়।শিক্ষক সমিতির পরে নোবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের নাম ঘোষণা না করায় তাৎক্ষণিক ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেন অফিসার্স এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ। পরবর্তীতে সবার শেষে তারা শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী বলেন,নোবিপ্রবিতে সব সময়ই সাদামাটা ভাবে আয়োজন করা হয় যে কোনো দিবস।যার ফলে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ এক শতাংশ ও হয়না।

এ বিষয়ে কথা বলতে গেলে নোবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন পলাশ ও সাধারণ সম্পাদক ইবনে ওয়াজেদ ইমন বলেন, এখানে একটি ভুল বুঝাবুঝি হয়েছে।আমরা আশা করি পরিবর্তীতে এরকম কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটবেনা।

নোবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈম রহমান ও সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হাসান শুভ বলেন,
আমাদেরকে যখনই সুযোগ দেওয়া হতো তখনি আমরা শ্রদ্ধা নিবেদন করতাম।দিবস উদযাপনে সব সময়ের মত সমন্বয়হীনতা রয়েছে।আমরা আশা করি জাতীয় দিবস উদযাপনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আরো সতর্ক হয়ে পরিকল্পনা করবেন।

উপস্থাপনা বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের সহকারী পরিচালক ফারিহান তাহরিম বলেন,উপস্থাপনা করার ক্ষেত্রে অফিস থেকে একটা সিরিয়াল করে দেওয়া থাকে। এছাড়াও উপস্থিত সিনিয়র শিক্ষকদের পরামর্শ অনুযায়ী আমরা ঘোষণা দিয়ে থাকি। এ বিষয়ে ব্যক্তিগতভাবে আমার কিছু করার সুযোগ নেই।

এ বিষয়ে ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ড. বিপ্লব মল্লিক বলেন,আমাদের দিবস উদযাপনের বিষয়ে সংশ্লিষ্টটা নেই। আমরা নির্দেশিত হয়ে দায়িত্ব পালন করেছি।

উদ্ভুত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা সভায় নোবিপ্রবি কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন,শুরুর দিকে কিছুটা সমস্যা হয়েছে যা আমাদেরকে ব্যথিত করেছে।আমরা আশা করছি পরবর্তীতে সঠিক ভাবে শ্রদ্ধাবোধের সাথে দিবসগুলো পালন করতে পারবো। সকলের সহযোগিতা আশা করছি।

দিবস উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক নোবিপ্রবি উপ- উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুল বাকী বলেন,প্রশাসনিক কিছু বিষয়ে সমস্যা হলে তা পুরো নোবিপ্রবির নাম চলে আসে।তাই আমাদের সবাইকে এই বিষয়ে সতর্ক হতে হবে।আমরা সকলে পরবর্তীতে আরো সতর্কতার সাথে সকলের সহযোগিতায় স্বতঃস্ফূর্তভাবে সুন্দর আয়োজন করবো।

Facebook Comments Box

Posted ১:৩০ অপরাহ্ণ | বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

bangladoinik.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

https://prothomalo.com
https://prothomalo.com

এ বিভাগের আরও খবর

https://prothomalo.com
https://prothomalo.com
চেয়ারম্যান
মোঃ সাইফুল ইসলাম
সম্পাদক
এইচ এম হাবীব উল্লাহ
সম্পাদক ও প্রকাশক
ফখরুল ইসলাম
সহসম্পাদক
মো: মাজহারুল ইসলাম
Address

32/ North Mugda, Dhaka -1214, Bangladesh

01941702035, 01917142520

bangladoinik@gmail.com

জে এস ফুজিয়ামা ইন্টারন্যাশনালের একটি প্রতিষ্ঠান। ভ্রাতৃপ্রতিম নিউজ - newss24.com