বৃহস্পতিবার ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

বার্লিন দূতাবাসের স্বাধীনতার ৫৩ বছর উদযাপন।

  |   বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪   |   প্রিন্ট   |   128 বার পঠিত

বার্লিন দূতাবাসের স্বাধীনতার ৫৩ বছর উদযাপন।

যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সাথে আজ ২৬ মার্চ ২০২৪ তারিখে বাংলাদেশ দূতাবাস, বার্লিন ‘মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস’ উদ্‌যাপন করেছে। সকালে অনুষ্ঠানের শুরুতেই মান্যবর রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, এনডিসি এর উপস্থিতিতে দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা- কর্মচারীসহ দূতাবাস প্রাঙ্গনে জাতীয় সংগীত বাজিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর মান্যবর রাষ্ট্রদূত সকলকে নিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা ও সকল শহিদ স্মৃতির উদ্দেশ্যে জাতীয় স্মৃতি সৌধের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পবিত্র মাহে রমজান ও দীর্ঘ ইস্টার ছুটির বিবেচনায় ‘মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০২৪’-এর জাঁকজমকপূর্ণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানটি পরবর্তী সুবিধাজনক সময়ে পালন করা হবে বিধায় দূতাবাস প্রাঙ্গনে ‘মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস’ এর তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

দিবসের আলোচনা কর্মসূচীতে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, মহান নেতা ও স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শহিদ জাতীয় চার নেতা, মুক্তিযুদ্ধের সকল শহিদ ও জীবিত বীর মুক্তিযোদ্ধা, সকল বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধা মা-বোনের অপরিসীম ত্যাগ-তীতিক্ষার কথা উল্লেখ করে বিশেষ এই দিনে তাঁদের সকলকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হয় এবং মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২০২৪ উপলক্ষ্যে প্রেরিত জাতীয় নেতৃবৃন্দের বাণীসমূহ পাঠ করা হয়। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস ও স্বাধীনতার জন্য জাতির পিতার আদর্শিক, রাজনৈতিক ভূমিকা বিষয় আলোচিত হয়, যেখানে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে পরিচালিত মুক্তির সংগ্রামের ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট, অর্জিত স্বাধীনতা এবং বাংলাদেশের অসামান্য অর্জনের বিষয় আলোচিত হয় ও তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। মান্যবর রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, এনডিসি তাঁর বক্তব্যের মাধ্যমে ১৯৪৭ সালের দেশ বিভাগ হতে শুরু করে বাঙালির মুক্তির সংগ্রামের প্রেক্ষাপট ও সেখানে জাতির পিতার রাজনৈতিক দূরদর্শিতার বিষয়ে আলোকপাত করেন। তিনি আরও বলেন যে, স্বাধীনতার জন্য বাংলাদেশ যে মূল্য দিয়েছে তা বিশ্বের ইতিহাসে বিরল ও অভূতপুর্ব। এই অর্জিত স্বাধীনতাকে আমাদের রক্ষা করতে হবে এবং স্বাধীনতার প্রকৃত মূল্য অনুধাবন করে সততার সাথে দেশ ও দেশের মানুষের জন্য একসাথে কাজ করে যেতে হবে।

মান্যবর রাষ্ট্রদূত পরিশেষে উল্লেখ করেন যে, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও নেতৃত্বের গুণাবলী ধারণ করে তাঁর কন্যা বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অর্থনৈতিক উন্নয়ন, বলিষ্ঠ ও নিরপেক্ষ কূটনীতি, অভ্যন্তরীণ স্থিতিশীলতা ইত্যাদির মাধ্যমে বাংলাদেশের মর্যাদাকে অনন্য উচ্চতায় প্রতিষ্ঠিত করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্ব, দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা, এমডিজি অর্জন, এসডিজি বাস্তবায়নসহ শিক্ষা, স্বাস্থ্য, লিঙ্গ সমতা, কৃষি, দারিদ্র্যসীমা হ্রাস, গড় আয়ু বৃদ্ধি, রপ্তানিমুখী শিল্পায়ন, ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা, পোশাক শিল্প, ওষুধ শিল্প, রপ্তানি আয় বৃদ্ধিসহ নানা অর্থনৈতিক সূচকে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। পদ্মা সেতু, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, পায়রা গভীর সমুদ্রবন্দর, ঢাকা মেট্রোরেলসহ দেশের মেগা প্রকল্পগুলো বাংলাদেশকে বদলে দিচ্ছে। আমাদের গন্তব্য, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা এবং তাঁর আদর্শকে বুকে ধারণ করেই এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।

Facebook Comments Box

Posted ৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪

bangladoinik.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

https://prothomalo.com
https://prothomalo.com

এ বিভাগের আরও খবর

https://prothomalo.com
https://prothomalo.com
চেয়ারম্যান
মোঃ সাইফুল ইসলাম
সম্পাদক
এইচ এম হাবীব উল্লাহ
সম্পাদক ও প্রকাশক
ফখরুল ইসলাম
সহসম্পাদক
মো: মাজহারুল ইসলাম
Address

32/ North Mugda, Dhaka -1214, Bangladesh

01941702035, 01917142520

bangladoinik@gmail.com

জে এস ফুজিয়ামা ইন্টারন্যাশনালের একটি প্রতিষ্ঠান। ভ্রাতৃপ্রতিম নিউজ - newss24.com